শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি.
সাপ্তাহিক জন্মভূমি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

খালেদা জিয়ার বাসার আরো ৮ জন করোনায় আক্রান্ত

১১-এপ্রি-২০২১ | jonmobhumi | 51 views

Spread the love

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’র আরো ৮ জন করোনাভাইরাসে সংক্রমিত। এর আগে বেগম খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্তের খবর নিশ্চিত করেছিল বিএনপি। এ নিয়ে ফিরোজায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাড়ালো ৯ জন।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে ফিরোজা থেকে বের হয়ে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. মামুন গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

ডা. মামুন জানান, চার-পাঁচ দিন আগে বেগম খালেদা জিয়ার বাসার একজন স্টাফের হালকা জ্বর ছিলো, তখন তাকে আমরা টেস্ট করাই। ফলাফল পজেটিভ আসে। পরে ওই স্টাফ যে রুমে থাকতো সেখানকার বাকিদেরও চেক করানো হয়। তাদেরও ফল আসে পজিটিভ। এরপর সেফটি পারপাসে ম্যাডামেরও চেক করানো হয়। দেখা যায় ম্যাডামেরও করোনা পজিটিভ।

এক প্রশ্নের উত্তরে মামুন বলেন, সব মিলেয়ে ৯ জন করোনা পজিটিভ আছেন। আল্লাহর অশেষ রহমতে ম্যাডামের ফিজিক্যাল কন্ডিশন ভালো। তার এখন পর্যন্ত কোনো রকম উপসর্গ নেই। যেমন জ্বর, কাশি, গলা ব্যথা, শ্বাসকষ্ট এরকম কোনকিছু নেই।

ডা. মামুন বলেন, আমাদের যে মেডিক্যাল বোর্ড আছে আমরা পরামর্শ করে ম্যাডামের নিয়মিত চিকিৎসা চালাচ্ছি। আল্লাহর রহমতে ম্যাডাম শক্ত আছেন। বাসায় রেখে তার ট্রিটমেন্ট করা সম্ভব কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত বাসায় রেখে ট্রিটমেন্ট করা সম্ভব। তথ্যটি আগে জানাননি কেন এর ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, একজন ডাক্তার হিসেবে রোগীর প্রাইভেসি রক্ষা করা আমার ঈমানী দায়িত্ব। একজন ডাক্তার হিসেবে যেটা করার আমি সেটা করেছি। পরবর্তিতে দলের মহাসচিব বিষয়টি জানিয়েছেন। ডাক্তারদের পক্ষ থেকে সকল ধরনের প্রস্তুতি নেয়া আছে জানিয়ে তিনি বলেন, একটি প্রাইভেট হাসপাতালের কেবিন আমরা ঠিক করে রেখেছি।

উল্লেখ্য রোববার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর (আইসিডিআর) এর প্রকাশিত এক রিপোর্টে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া করোনা আক্রান্ত বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে। পরে বিকেল সাড়ে চারটায় বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দলের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সার্চ/অনুসন্ধান করুন