শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি.
সাপ্তাহিক জন্মভূমি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

জিয়ার অপকর্ম ঢাকতেই মানববন্ধন করছে বিএনপি ॥ তথ্যমন্ত্রী

০৫-অক্টো-২০২০ | jonmobhumi | 414 views

Spread the love

জিয়াউর রহমানের অপকর্ম ঢাকতেই বিএনপি মানববন্ধন করছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান যে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিল এবং বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের পুনর্বাসিত করেছেন, সেগুলো যখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে।
এগুলো যখন পত্রপত্রিকায় ছাপানো হচ্ছে, জনগণের কাছে বিশ্বাসযোগ্য আকারে গণমাধ্যম উপস্থাপন করছে তখন বিএনপির গাত্রদাহ শুরু হয়েছে।
রবিবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে চলচিত্র নির্মাতা, গবেষক ও প্রশিক্ষকদের সঙ্গে সভাশেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি মন্তব্য করেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমান যে মুক্তিযোদ্ধার ছদ্মাবরণে প্রকৃতপক্ষে পাকিস্তানের সহযোগী হিসেবে কাজ করছিল সেগুলোর তথ্য-উপাত্ত বেরিয়ে আসছে। এগুলো যখন পত্রপত্রিকায় ছাপানো হচ্ছে, তখন তাদের গাত্রদাহ হচ্ছে। এজন্য তারা বিএনপি অফিসের সামনে জিয়াউর রহমানের অপকর্ম ঢাকার জন্য মানববন্ধনের অপচেষ্টা করে।
গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আওয়ামী লীগ আগে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করতে চায়-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গয়েশ্বর বাবু, বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি হচ্ছে আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করেছে বিএনপি। বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর, জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করার পর মুক্তিযুদ্ধের সব চেতনাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে। যে চেতনার ভিত্তিতে দেশ স্বাধীন হয়েছিল সেই চেতনাকে ধ্বংস করেছেন তিনি।
আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনেও অনুপ্রবেশকারীদের জায়গা হবে না জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনেও অনুপ্রবেশকারীদের আর কোনো জায়গা হবে না। একইসঙ্গে সংগঠনকে গতিশীল করার জন্য ও যেসব জায়গায় সম্মেলন হয়েছে সেই কমিটিগুলো পূর্ণাঙ্গ করার জন্য এবং জেলা-উপজেলায় সম্মেলন হয়নি সেখানে সম্মেলন করার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সাংগঠনিক সম্পাদক এবং দলীয় সম্পাদকদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রেসিডিয়াম সদস্যদেরও বিভাগীয় পর্যায়ে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।
অনেক অনলাইন পোর্টাল সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনা করছে, সেসব অনলাইনও নিবন্ধন পাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে আলোচনা-সমালোচনা থাকবেই, সরকারের সমালোচনা করলে নিবন্ধন পাবে না, এটা নয়। দায়িত্বে থাকলে সমালোচনা হবে, সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনা করা অপরাধ নয়। অনলাইন নিবন্ধন দেওয়ার ক্ষেত্রে তিনটি সংস্থা যাচাই-বাছাই করছে। তিনটি সংস্থা থেকে যখন অনাপত্তি পাচ্ছি, নিবন্ধনের জন্য শুধু সেগুলোকে ছাড়পত্র দিচ্ছি।

সার্চ/অনুসন্ধান করুন