শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি.
সাপ্তাহিক জন্মভূমি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

তারা মামলা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায় : মির্জা ফখরুল

০৯-ডিসে-২০২০ | jonmobhumi | 397 views
Mirza Fokhrul

Spread the love

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ভাস্কর্য নিয়ে পরিকল্পিতভাবে মামলা করা হয়েছে। বিরোধী দলের নেতাদের সব সময় মামলার মধ্যে রাখাই তাদের কাজ। যখন গণতন্ত্রকে ভয় পায়, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে ভয় পায়, তখন তারা মামলা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। তাদের কাজই হচ্ছে সারাক্ষণ মামলা দেয়া। পুরোপুরি রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে এ কাজ করেছে।

বুধবার বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি বিএনপিকে বর্ণচোরা বলে বক্তব্য দিয়েছেন। এর প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজেই বুঝেন তার কথাবার্তা। আর বর্ণচোরা বলতে যা বুঝায় সেটা তারা (আওয়ামী লীগ); কারণ তারা মুখে বলেন একটা কথা কাজ করেন আরেকটা। মুখে তারা গণতন্ত্রের কথা বলেন আর গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেন। এটা আজকে নতুন না, স্বাধিনতার পর থেকেই তারা তাই করছেন। দেশে আজ যে অনিশ্চয়তা, অস্থিতিশীলতা এটা তাদের জন্য সৃষ্টি হয়েছে। আগেও গণতন্ত্রের কথা বলে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্টা করে ছিলেন। তখন তারা বর্ণচোরা রাজনীতি করেছিলেন। আজকেও তারা গণতন্ত্রের কথা বলছেন মুখে; কিন্তু তারা সম্পূর্ণভাবে ফ্যাসিস্ট রেজিম চালাচ্ছেন। এবং দেশের জনগণের যে গণতান্ত্রিক অধিকার তা হরণ করে তারা পুরোপুরি বর্ণচোরায় পরিণত হয়েছেন।

উগ্রবাদ নিয়ে মির্জা আলমগীর বলেছেন, আজ দেশে যে উগ্রবাদের সৃষ্টি হয়েছে এটাও আওয়ামী লীগের সৃষ্টি। একটা দেশে যখন এ ধরনের ফ্যাসিস্ট সরকার দীর্ঘদিন রাজ কায়েম করে তখনই দেশে উগ্রবাদের জন্ম নেয়। এসব উগ্রবাদীদের কাজে লাগিয়ে তারা জনসমর্থন নেয়ার চেষ্টা করে।

বুধবার ঢাকা মূখ্য মহানগর হাকিম আদালতে ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্যে সহযোগিতা করার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলা সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকীর কাজই হচ্ছে বিরোধীদলের বিরুদ্ধে মামলা করা। তিনি এ পর্যন্ত আমার নামে ১৫ টিরও বেশি মামলা করেছেন। তাকে আওয়ামী লীগ সরকার পুষে রেখেছে আমাদের বিরুদ্ধে এ ধরনের অযৌক্তিক মামলা করে হয়রানী করার জন্যেই। এ ধরনের ফ্যাসিস্ট সরকার যখন জনগণের সম্মুখীন হতে পারে না,অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন করতে ভয় পায় তখনই মামলা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায় তারা। 

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমীন,ঠাকুরগাঁও পৌর মেয়র প্রার্থী শরিফুল ইসলাম শরিফ সহ জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা।

সার্চ/অনুসন্ধান করুন