শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি.
সাপ্তাহিক জন্মভূমি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পাকিস্তান এই সুযোগটা কাজে লাগাতে চায়

১৩-আগ-২০২০ | jonmobhumi | 469 views

Spread the love

ওল্ড ট্রাফোর্ডে জয়ের খুব কাছে গিয়েও পারেনি পাকিস্তান। সাউদাম্পটনে আজ থেকে শুরু দ্বিতীয় টেস্টের আগে পাকিস্তান অন্তত কিছুটা হলেও ফুরফুরে মেজাজে। প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড যে তাদের বড় এক ‘অস্ত্র’কে পাচ্ছে না আজ। হ্যাঁ, বেন স্টোকস। ইংল্যান্ডের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এ ক্রিকেটার বাবার অসুস্থতার কারণে সিরিজ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

পাকিস্তানের বোলিং কোচ, সাবেক অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিস স্টোকস না থাকার এই সুযোগটা কাজে লাগাতে চাচ্ছেন খুব করে। স্টোকসের মতো ক্রিকেটারের না থাকা ইংল্যান্ডের জন্য কত অসুবিধার সেটি বুঝতে খুব বড় ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ হওয়ার দরকার নেই।

এ মুহূর্তে ইংলিশ দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার যে স্টোকস, তাতে কারও কোনো সন্দেহ নেই। ব্যাটে-বলে স্টোকসের প্রভাব প্রশ্নাতীত। জফরা আর্চার যেমন বলেছেন, স্টোকসের মতো ক্রিকেটারদের খুব বেশি রান করা বা উইকেট নেওয়ার প্রয়োজন নেই। প্রতিপক্ষের জন্য মাঠে তাদের উপস্থিতিটাই যথেষ্ট।

সাউদাম্পটনে বাকি দুই টেস্টেই স্টোকস থাকবেন না। তিনি এখন জন্মভূমি নিউজিল্যান্ডে। বাবা গুরুতর অসুস্থ। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রথম টেস্টে হেরে যাওয়ার পর সিরিজ বাঁচাতে বাকি দুই টেস্টের অন্তত একটিতে পাকিস্তানের জয় আবশ্যক।

স্টোকসের না থাকাটা ক্রিকেটের জন্য খারাপ, ইংল্যান্ডের জন্য অসুবিধার হলেও পাকিস্তানের জন্য যে সেটি সুসংবাদ, তা কোনো রাখঢাক না রেখেই বলেছেন ওয়াকার, ‘স্টোকসের না থাকাটা ক্রিকেটের জন্য দুঃসংবাদ, ইংল্যান্ডের জন্য খারাপ, কোনো সন্দেহ নেই, সে ম্যাচ উইনার। সে ইংল্যান্ড দলে থাকলে তাদের জন্য বড় সুবিধা। সে আগামী দুই টেস্টে নেই। আমাদের এ সুযোগ কাজে লাগাতে হবে।’

স্টোকস কত বিপজ্জনক সেটি বলতে কোনো দ্বিধা নেই ওয়াকারের, ‘স্টোকস একজন বিপজ্জনক খেলোয়াড়, সে খুব সহজে একাই ম্যাচ প্রতিপক্ষের হাত থেকে কেড়ে নিতে পারে। গত ম্যাচেই বুঝেছি, আমাদের বোলারদের বিপক্ষে তাঁর একটা পরিকল্পনা আছে এবং সে সেটি বাস্তবায়নের সুযোগ খুঁজছিল।’

এখন দেখার অপেক্ষা স্টোকস না থাকার সুবিধা কতটুকু কাজে লাগাতে পারে পাকিস্তান।

সার্চ/অনুসন্ধান করুন