বুধবার, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি.
সাপ্তাহিক জন্মভূমি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

প্রচারাভিযান ছাড়াই মেয়র হলেন বিএনপি নেতা

২৯-নভে-২০২১ | jonmobhumi | 20 views

Spread the love

গাজীপুরের কালিয়াকৈর পৌরসভা নির্বাচনে পোস্টার, ব্যানার ও নির্বাচনী প্রচারাভিযান ছাড়াই স্বতন্ত্র মেয়র নির্বাচিত হলেন বর্তমান মেয়র বিএনপি নেতা মজিবুর রহমান। নৌকার প্রার্থীর চেয়ে ছয় হাজার ৪৫২ ভোট বেশি পেয়ে তিনি নির্বাচিত হন।

মজিবুর রহমান মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন ২৩ হাজার ৬২৩ ভোট এবং আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম রাসেল নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১৭ হাজার ১৭১ ভোট।

মজিবুর রহমান কালিয়াকৈর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র এবং রেজাউল করিম রাসেল কালিয়াকৈর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

রিটার্নিং অফিসার ও গাজীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ ইস্তাফিজুল হক এ খবর নিশ্চিত করেন।

কালিয়াকৈর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন, সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৬২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

রোববার (২৮ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে পৌরসভার ৪১টি ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এ পৌরসভায় মোট ভোটার ৯৫ হাজার ৪৩৫ জন। ৪৫ হাজার ভোটার ইভিএম-এ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। নির্বাচনে বিচ্ছিন্ন ২/১টি ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

তবে দুপুরে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম রাসেল বলেন, নৌকার ব্যাজ পরিহিতদের পেটানো হয়েছে। তাদের এলাকা ছাড়া করছে র‌্যাব, বিজিবি ও পুলিশ। আমি যেখানে যাচ্ছি, একটু পর পর সেখানে রিটার্নিং অফিসার ব্যারিকেড সৃষ্টি করছেন। আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এলাকায় নিরবচ্ছিন্ন ভোট হচ্ছে।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চান্দরা আইডিয়াল স্কুলকেন্দ্র পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান বলেন, ইভিএমে ভোট যদি সঠিক রেজাল্ট দেয়, মানুষের গণতান্ত্রিক মতামতকে প্রতিফলিত করতে পারে তবে নির্বাচন কমিশনের প্রতি মানুষের আস্থা বাড়বে।

ফলাফল ঘোষণার পর নির্বাচনে পোস্টার, ব্যানার ও নির্বাচনী প্রচারাভিযান ছাড়াই তিনি কিভাবে নির্বাচিত হলেন জানতে চাইলে মজিবুর রহমান বলেন, ভোটারদের আমি সারা বছর সেবা দিয়ে আসছি। তারা আমাকে চেনেন, জানেন, তাই তারা আমাকে নির্বাচিত করেছেন। ২০১১সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনেও তারা আমাকে ৮০% ভোট বেশি দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন।

২০০১ সালে গঠিত কালিয়াকৈর পৌরসভায় ২০০৩ সালে তিনি প্রশাসক নিযুক্ত হন। পরে ২০১১সালে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। ইতোমধ্যে কালিয়াকৈর পৌরসভা প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত হয়েছে।

সার্চ/অনুসন্ধান করুন