বৃহস্পতিবার, ৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি.
সাপ্তাহিক জন্মভূমি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

বাংলাদেশ থেকে সংখ্যালঘু ও বৌদ্ধদের বিতারিত করার চক্রান্তের প্রতিবাদে, নিউইয়র্কে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানব বন্ধন

২৮-সেপ্টে-২০২০ | jonmobhumi | 186 views
news

Spread the love

বাংলাদেশ থেকে বৌদ্ধদের বিতারিত করার চক্রান্ত বৌদ্ধ ভিক্ষুর বিরুদ্ধে মামলা ও জমি দখল আওয়ামীলীগ সরকারের মন্ত্রী হাসান মাহমুদ ও তার ভাই এরশাদ মাহমুদের হাত থেকে বৌদ্ধ বিহার পুনরুদ্ধার এবং শরণংকর ভিক্ষুকে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া ফলাহারিয়া গ্রামে বৌদ্ধ বিহারে স্বসম্মানে ফিরিয়ে নেয়ার দাবীতে মানব বন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন- মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলাদেশে কিছু আধ্যাত্মিক সাধনায় সিদ্ধ বৌদ্ধ ভিক্ষুর কল্যাণে যখন বৌদ্ধ ধর্মের পুনঃজাগরন হয়েছে, সেই সময়ে একটি কুচক্রি মহল বাংলাদেশ থেকে বৌদ্ধ ধর্ম বিনাস করতে উঠে পরে লেগেছে । এরই ধারা বাহিকতায় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া ফলাহারিয়া জ্ঞানশরণ মহা অরণ্য কুঠির থেকে ধুতাংগ সাধক শরনংকর ভিক্ষুকে উচ্ছেদ করে সেই বৌদ্ধ বিহার ও বিহারের জমি দখল করার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। তথাকথিত অসাম্প্রদায়িক চেতনার বুলি উড়ানো একটি রাজনৈতিক দল এই ন্যাকার জনক ঘটনার মুল শক্তি হিসাবে কাজ করে যাচ্ছে । আওয়ামীলীগ সরকারের মন্ত্রী হাসান মাহমুদ ও তার ভাই এরশাদ মাহমুদের লোলুপ দৃষ্টি পরেছে শরণংকর ভান্তের এই বৌদ্ধ বিহারের জায়গার উপর। তাই স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের নিয়ে এখানে প্রতিদিন অস্ত্রের মহড়া চলছে ৷ যাতে করে বৌদ্ধ জনগোষ্ঠীর লোকজন ভয়ে পালিয়ে যায়। এবং শরণংকর ভিক্ষু যেন এলাকায় যেতে না পারে । অন্য দিকে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকজনের নাম দিয়ে বৌদ্ধ ভিক্ষুর উপর একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে যাচ্ছে। এঘটনার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করা হলেও কোন লাভ হয়নি। তাই অনতি বিলম্বে শরণংকর ভিক্ষুর বৌদ্ধ বিহার জোড় দখল থেকে মুক্ত করার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছি । যতদিন শরণংকর ভিক্ষু পুনরায় সেখানে ফিরে যেতে পারবেন না , ততদিন আমরা প্রবাসীরা বিশ্বের বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের কূটনৈতিকদের মাধ্যমে এ সমস্যা সমাধানের চেস্টা চালিয়ে যাব।

নীলা রায় হত্যা ও হত্যাকারী মিজানের ফাঁসী , ভিক্ষু শরনংকর থেরকে নির্যাতন , ডা : জাফরউল্লাহ সাম্প্রদায়িক উসকানীমুলক বক্তব্য ও টাঙ্গাইলে শ্রাবন হালদার নামক যুবকে কে মিথ্যা ধর্মানুভূতির দোহাই দিয়ে সাম্প্রদায়িক হামলা ও লুটপাট ও শ্রাবন্তী দত্ত নামক মেয়েক অপহরণ ও জোর পুর্বক ধর্মান্তর , পাহাড়ে সেটেলার কর্তৃক পাহাড়ীদের অবিরত ধর্ষণ ও দখলদারিত্ব , প্রতিদিন দেশে সাম্প্রদায়িক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান রবিবার ০৯/২৭/২০২০ সন্ধ্যা ৫:৩০ মিনিটে জ্যাকসন হাইট , নিউইয়র্ক, আমেরিকা প্রতিবাদ সভার বক্তারা দেশের পরিস্থিতি ব্যর্থ বলে দেশের সরকার ও সরকারের অধীনস্ত কর্মীরা এত রক্ত পিপাসু কেন, ? দেশের পতাকা আজ ধর্ষণের তাজা রক্তে ভিজে গেছে ! -মহালছড়িতে ৮ম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণের কথা -ফটিকছড়িতে ইউপি সদস্য কর্তৃক এক ত্রিপুরা নারীকে নির্যাতনের অভিযোগের কথা -তাইন্দং খেওয়াপাড়ায় এক আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণের প্রচেষ্টার কথা -দিঘীনালায় এক পুলিশ কনস্টেবল কর্তৃক ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের কথা -খাগড়াছড়ি জেলার সদর উপজেলার ১নং গোলাবাড়ি ইউনিয়ন সংলগ্ন বলপিয়ে আদাম নামক গ্রামে নিজ বাড়িতে সেটেলার বাঙালী কর্তৃক মানসিক প্রতিবন্ধী এক আদিবাসী নারীকে গণধর্ষণের কথা -কাপ্রু ম্রো পাড়ার নীলগিরি হতে জীবন নগর পর্যন্ত সেনাবাহিনী কর্তৃক ভূমি বেদখলের কথা -বম জনগোষ্ঠীকে উচ্ছেদ করিয়ে অনিন্দ্য পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের কথা -সাজেকে রুইলুই ভ্যালিতে নির্মাণ করা পর্যটন স্পটের কথা -পাহাড়িদের জীবন নিয়ে উপস্হাপনার রাজনীতির কথা – পার্বত্য চট্টগ্রাম, কাপ্তাই বাধঁ ও এর ফলাফলের কথা -জেলা পরিষদ, উন্নয়ন বোর্ড, পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রনালয় গঠন হওয়ার পেছনে পেক্ষাপট ও বাস্তবতার কথা -পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রতি ছয়মাস অন্তর অন্তর কতজন আদিবাসী নারী ধর্ষণ হয়েছে, কত আদিবাসী নারী ধর্মান্তরিত হয়েছে, কতজন আদিবাসী নারী গর্ভবতী হয়ে বাসায় ফিরেছে; আদিবাসী নারীদের বাস্তবতার কথা পাহাড়ে প্রতিদিন কোন না কোন মেয়ে ধর্ষণ হচ্ছে, এটা কি উৎসব নাকি সংখ্যালঘু নিধণের একটি সিস্টেম ?

আমাদের প্রশ্ন জননেত্রীকে – আপনি কি সোনার বাংলাকে পাকিস্তানে পরিণত করতে চান ? তারই ধারাবাহিক-তায় সংখ্যালঘু নির্যাতন ? সম্মিলিত প্রচেষ্টায় প্রতিবাদের আয়োজন করেন হিন্দু কোয়ালিশন যুক্তরাষ্ট্র,নিউ ইয়র্ক বুদ্ধিস্ট কমিউনিটি , উল্লখ্য প্রতিবাদে বক্তব্য প্রদান করেন, সিতাংশু গুহা , মং প্ররু , সিদ্ধার্থ বড়ুয়া , দীনেশ মজুমদার , গোবিন্দ বানিয়া , অমল বড়ুয়া , অশোক বড়ুয়া ( ইভান ) , বিনয় চাকমা, শুভাশিস বড়ুয়া , রনবীর বড়ুয়া , ডঃ টমাস দুলু রায় , বিধান রায় , পীযুষ , মত্রিশর, মংক্যশৈ মারমা, রাসেল চাকমা, নিরাময় তচঙ্গ্যা ও প্রমুখ প্রতিবাদে উল্লেখ্য ঘটনার জন্য তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

সার্চ/অনুসন্ধান করুন